• শিরোনাম

    ঈদ জামাত কখন কোথায়

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ১৫ জুন ২০১৮

    ঈদ জামাত কখন কোথায়

    জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি শুক্রবার সন্ধ্যায় বৈঠকে বসছে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে। সেখান থেকেই আসবে ঈদের ঘোষণা। জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। এতে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের জ্যেষ্ঠ পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান। বিকল্প ইমাম হিসেবে থাকবেন মিরপুর জামেয়া আরাবিয়ার মুহতামিম শায়খুল হাদিস মাওলানা সৈয়দ ওয়াহিদুয্যামান।

    জাতীয় ঈদগাহের নিরাপত্তায় পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করে সন্তুষ্টি জানিয়েছেন ঢাকার পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। জাতীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ পড়তে যারা যাবেন, তাদের জায়নামাজ ও ছাতা ছাড়া অন্য কিছু না নিতে অনুরোধ করা হয়েছে। আবহাওয়া বিরূপ থাকলে ঈদের প্রধান জামাত হবে ৯টায়, বায়তুল মোকাররম মসজিদে।

    বায়তুল মোকাররমে ৫টি জামাত

    বরাবরের মতোই জাতীয় মসজিদে বায়তুল মোকাররমে পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত হবে সকাল ৭টায়, এরপর সকাল ৮টা, সকাল ৯টা, সকাল ১০টা ও সকাল পৌনে ১১টায় জামাত অনুষ্ঠিত হবে। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মুহিবুল্লাহিল বাকী নদভী, হাফেজ মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেম, মুফতি মাওলানা ওয়ালিয়ুর রহমান খান, মাওলানা জুবাইর আহাম্মদ আল আযহারী এবং তেজগাঁও রেলওয়ে জামে মসজিদের খতিব ড. মাওলানা মুশতাক আহমাদ নামাজে ইমামতি করবেন। সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় ঈদের জামাত সকাল ৮টায়। এছাড়া ঢাকার বিভিন্ন স্থানে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

    প্রস্তুত শোলাকিয়া

    ২০১৬ সালে ঈদুল ফিতরে রক্তাক্ত জঙ্গি হামলার পর এবারও নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে প্রস্তুত হয়েছে চলছে কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া মাঠ। এখানে এবার হবে ১৯১তম ঈদুল ফিতরের জামাত। প্রতিবছরের মতো এবারও জামাত শুরু হবে সকাল ১০টায়। ইমামতি করবেন ইসলাহুল মুসলিমিন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা ফরীদউদ্দীন মাসঊদ।

    নিরাপত্তা নিশ্ছিদ্র করতে এবার প্রথম যুক্ত করা হয়েছে ড্রোন। নিরবচ্ছিন্ন নজরদারির জন্য তিনটি ড্রোন উড়বে বলে কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ জানিয়ে ছেন। ঈদগাহ ময়দানে আর্চওয়ের মধ্য দিয়ে মুসল্লিদের ঢুকতে হবে। এর আগে আরও অন্তত তিন দফা মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে মুসল্লিদের দেহ তল্লাশি করা হবে। নিরাপত্তার স্বার্থে ঈদগাহে কোনো ধরনের ব্যাগ নিয়ে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জানিয়েছে।

    কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও ঈদগাহ পরিচালনা কমিটি সভাপতি মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী জানান, মুসল্লিদের সেবায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে বহুসংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক ও কয়েকটি মেডিক্যাল টিম। দূর-দূরান্তের মুসুল্লিদের যাতায়াতের জন্য শোলাকিয়া স্পেশাল নামে দুটি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থাও করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। একটি ট্রেন সকাল পৌনে ৬টায় ময়মনসিংহ থেকে এবং অন্য ট্রেনটি সকাল ৬টায় ভৈরব থেকে শোলাকিয়া মাঠের উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। নামাজ শেষে ট্রেন দুটি দুপুর ১২টায় ছেড়ে যাবে বলে জানিয়েছেন কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মো. কামরুজ্জামান।

    অন্যান্য স্থানে ঈদ জামাত

    সিলেটে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায় ঐতিহাসিক শাহী ঈদগাহ ময়দানে। এতে ইমামতি করবেন বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম হাফিজ মাওলানা কামাল উদ্দিন। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এখানে ঈদের নামাজ আদায় করবেন।

    এছাড়াও দরগাহে হজরত শাহজালাল (রহ.) জামে মসজিদ ও শাহপরান (রহ.) জামে মসজিদে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। বন্দরবাজার হাজী কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদে ঈদের তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে, সকাল সাড়ে ৭টায়, সকাল সাড়ে ৮টায় এবং সকাল সাড়ে ৯টায়। সকাল ৮টায় সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে ও সাড়ে ৮টায় সিলেট কালেক্টরেট জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে ঈদুল  ফিতরের জামাত।

    রাজশাহীতে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে হজরত শাহ মখদুম (রহ.) ঈদগাহ ময়দানে সকাল ৮টায়। এতে ইমামতি করবেন হজরত শাহ্ মখদুম (রহ.) জামিয়া ইসলামীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি শাহাদাৎ আলী। আবহাওয়া বৈরী হলে একই সময়ে হযরত শাহ্ মখদুম (রহ:) দরগা মসজিদে একাধিক ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। রাজশাহী নগরীতে সিটি করপোরেশন প্রধান ঈদগাহ ছাড়াও ২৫টি ঈদগাহ প্রস্তুত করেছে। এসব ঈদগাহের বেশিরভাগেই সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

    রাজশাহীতে প্রথম ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৭টায় নওদাপাড়া আমচত্তর আহলে হাদীস মাঠে। বরিশালে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে হেমায়েত উদ্দিন কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে, সকাল সাড়ে ৮ টায়। স্টিমার ঘাট জামে মসজিদের খতিব মাওলানা সিহাব উদ্দিন ঈদের জামাতে ইমামতি করবেন। বিভাগের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯টায় চরমোনাই দরবার শরীফ ময়দানে। এখানে প্রায় ২০ হাজার মুসল্লির অংশগ্রহণে ঈদের জামাতে ইমামতি করবেন চরমোনাই পীর মাওলানা মুফতি সৈয়দ মোহাম্মাদ রেজাউল করিম।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com