• শিরোনাম

    ক্ষমা চাইতে গিয়ে কান্নায় ভিজলেন স্মিথ

    ডেনাইট ডেস্ক | ২৯ মার্চ ২০১৮

    ক্ষমা চাইতে গিয়ে কান্নায় ভিজলেন স্মিথ

    স্টিভেন স্মিথ কদিন আগেও ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের নায়ক। হঠাৎই ‘বল টেম্পারিং’ নামের ঝড় তাঁকে বানিয়ে দিল দেশটির ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় খলনায়ক। দেশে পৌঁছেই বিমানবন্দরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়া স্মিথ যেন পরাজিত সৈনিক। দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চাইতে গিয়ে নিজে কেঁদেছেন, কে জানে হয়তো বা কাঁদিয়েছেন অনেক ভক্তকেও!

    অসি ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান পুড়ছিলেন অনুশোচনার আগুনে। কেপটাউন টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে সেই যে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন, এরপর আর স্মিথের দেখা মেলেনি সংবাদ সম্মেলনে। এবার যেন নিজের দোষ স্বীকার করতে গিয়ে আবেগের বাঁধটা আর সামলাতে পারলেন না।

    সতীর্থ আর দেশের মানুষ থেকে শুরু করে বিশ্বের সব ভক্তর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করতে গিয়ে একদম অঝোরে কেঁদেছেন সদ্যই সাবেক অধিনায়ক হয়ে যাওয়া স্মিথ। সিডনি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কান্নায় ভিজে স্মিথ বলেছেন, ‘আমার সকল সতীর্থ, বিশ্বজুড়ে আমার সব ভক্ত আর সব অস্ট্রেলিয়ান, যারা আমার কর্মকাণ্ডে হতাশ এবং রাগান্বিত, সবার কাছেই আমি ক্ষমাপ্রার্থী।’

    নেতৃত্ব চলে যাওয়ার পরেও বল টেম্পারিংয়ের পুরো দায় নিজের ঘাড়ে তুলে নিয়ে নিজের অধিনায়ক-সত্তার প্রমাণ রেখেছেন স্মিথ, ‘অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক হিসেবে এ ঘটনার জন্য দায়ী আমিই। আমার আরো ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত ছিল। তাহলে এমন দিন আর দেখতে হতো না। এটা আমার নেতৃত্বের ব্যর্থতা ছিল। এ ক্ষতি পুষিয়ে নিতে যা যা করার দরকার, আমি তার সবই করব।’

    ক্ষতি কতটা পুষিয়ে নিতে পারবেন স্মিথ, সে সময়ই বলে দেবে। আপাতত অস্ট্রেলিয়া দলের সঙ্গে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের ক্ষতিটাও কিন্তু কম হয়নি। অস্ট্রেলিয়া বোর্ড স্মিথকে নিষিদ্ধ করেছে এক বছরের জন্য, সঙ্গে আইপিএলের এবারের মৌসুমেও থাকছেন না তিনি। এখানেই শেষ নয়, অস্ট্রেলিয়া দলের অধিনায়কত্ব তো হারিয়েছেনই, সঙ্গে গেছে আইপিএলের নেতৃত্বও।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    পাকিস্তানে খেলতে চান সাকিব

    ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com