• শিরোনাম

    ফরিদপুরে ভাতিজার হাতে প্রাণ গেল চাচার

    ফরিদপুর প্রতিনিধি | ১৬ মার্চ ২০১৮

    ফরিদপুরে ভাতিজার হাতে প্রাণ গেল চাচার

    ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের গদাধরদী গ্রামে শুক্রবার সকালে ভাতিজার হাতে খুন হয়েছেন চাচা আবদুল্লাহ ফকির (৫৫)। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো তিনজন। এদের মধ্যে ১ জনের অবস্থা আশংকাজনক। খুনের ঘটনার পর পালিয়ে যায় ভাতিজা হাফিজ ফকির ও মফিজ ফকির।

    মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, খুনের ঘটনার পর পালিয়ে যায় হাফিজ ফকির ও মফিজ ফকির। তাদের আটকের চেষ্টা চলছে।

    স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রায়পুর ইউনিয়নের গদাধরদী গ্রামের চাচা আবদুল্লাহ ফকিরের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল ভাতিজা হাফিজ ফকির ও মফিজ ফকিরের। বৃহস্পতিবার গাছের তেতুল পাড়াকে কেন্দ্র করে চাচা আবদুল্লাহ ফকিরের সাথে কথা কাটাকাটি হয় মফিজ ফকিরের। এরই জের ধরে শুক্রবার ভোরে ফের চাচা ভাতিজার সাথে বাক বিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে ভাতিজা হাফিজ ও মফিজ চাচা আবদুল্লাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক ভাবে আহত করে।

    এসময় ঠেকাতে এসে হামলার শিকার হন আবদুল্লাহ’র ছেলে আক্কাস ফকির ও পুত্রবধূ খোদেজা। মারাত্মক আহত অবস্থায় আবদুল্লাহকে উদ্ধার করে প্রথমে মধুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতালে আনার পর মারা যায় আবদুল্লাহ। মারাত্মক আহত অবস্থায় আক্কাস ফকির ও খোদেজাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পর আক্কাসকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়।

    রায়পুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোতালেব মৃধা জানান, দীর্ঘদিন ধরে দুই পরিবারের মাঝে জমি নিয়ে বিরোধী চলে আসছিল। মধুখালী থানা সূত্রে জানাগেছে, এ ঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বে-রসিক ইউএনও!

    ১২ মার্চ ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com