• শিরোনাম

    বাবার লাশ রেখে পরীক্ষার হলে

    চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

    বাবার লাশ রেখে পরীক্ষার হলে

    পরীক্ষা শেষ হতে আরও এক ঘণ্টা বাকি। পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে বিষণ্ন মুখে তড়িঘড়ি করে বেরিয়ে এল এক পরীক্ষার্থী। দেখে মনে হচ্ছিল তার অনেক তাড়া আছে। দ্রুত এক অটোরিকশায় চেপে বসে।

    স্বাভাবিকভাবে তার দিকে কৌতূহলী দৃষ্টি ছিল সবার। কী এমন হলো যে পরীক্ষা শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা আগেই বেরিয়ে এসেছে? কাছে গিয়ে জিজ্ঞেস করতেই জানা গেল, গতকাল শুক্রবার রাত তিনটার সময় তার বাবা মারা গেছেন।

    বাবার লাশ ঘরে রেখেই আজ শনিবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার মেরিন একাডেমি স্কুল অ্যান্ড কলেজের মানবিক শাখার পরীক্ষার্থী নাজমুন নাহার। তার পরীক্ষা কেন্দ্র ছিল বটতলী এস এম আউলিয়া উচ্চবিদ্যালয়ে। নাজমুন জানায়, কোনো রকমে দুই ঘণ্টায় পরীক্ষা দিয়ে বেরিয়ে এসেছে সে।

    জানা গেছে, উপজেলার উত্তর বন্দর গ্রামের বাসিন্দা মো. নাছির উদ্দিন গতকাল রাত তিনটায় মারা যান। লাশ দাফনের আগে আজ সকালে বাংলা দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা দিতে আসে নাজমুন। উত্তর বন্দর গ্রামের বাসিন্দা মোবারক আলী বলেন, নাজমুন পরীক্ষা হল থেকে ফেরার পর জোহরের নামাজ শেষে নাছিরের দাফন হয়েছে।

    নাজমুনের সহপাঠী ও প্রতিবেশী নাহিদা আক্তার বলে, ‘নাজমুনের বাবা অসুস্থ ছিলেন। মনে অনেক কষ্ট নিয়ে নাজমুন পরীক্ষা দিতে যায়। তাকে সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা পাচ্ছি না।’

    নাজমুন নাহারের পরীক্ষা কক্ষে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন আবদুল মোমেন। তিনি বলেন, পরীক্ষার সময় নাজমুন খুব বিমর্ষ ছিল। মাঝেমধ্যে কাঁদছিলও। কোনো রকমে নৈর্ব্যক্তিক ও রচনামূলক প্রশ্নের উত্তর প্রথম দুই ঘণ্টায় শেষ করে বের হয়ে যায়। ওই হলের তত্ত্বাবধায়ক আমিরুজ্জমান  বলেন, ‘ঘরে বাবার লাশ রেখে পরীক্ষা দিতে এসেছে মেয়েটি। এটা জেনে আমরা তার দিকে খেয়াল রাখি। যেন সে মনোবল না হারায়।’

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বে-রসিক ইউএনও!

    ১২ মার্চ ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com