• শিরোনাম

    মাদক প্রভাবশালীদের খোঁজে র‌্যাব

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৭ নভেম্বর ২০১৮

    মাদক প্রভাবশালীদের খোঁজে র‌্যাব

    সমাজের কোনো না কোনো প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ীদের রক্ষা করছে। তাই মাদক বহনকারীদের গ্রেফতার করে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে কোন প্রভাবশালীর নাম উঠে আসলে তাকেও আইনের আওতায় আনা হবে। মাদকের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন র‌্যাব মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ। গতকাল দুপুরে র‌্যাব সদর দফতরে ক্যাট; আধুনিক; সাস্ক; হু হেলদি সিটি ফোরামের উদ্যোগে ‘মাদক-সন্ত্রাস-দুর্নীতি বিরোধী প্রচার দিবস’ উপলক্ষে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

    র‌্যাব ডিজি বলেন, আমরা ৬ মাস আগে যখন মাদকের বিরুদ্ধে কাজ শুরু করেছি তখন যাদের কাছ থেকে মাদক আনা হচ্ছে সেসব ডিলারদের বের করেছি। তারপর ডিলারদের কাছ থেকে মাদক বহনকারী পর্যন্ত পৌঁছাই। এখন কোথায় থেকে মাদক আনা হচ্ছে সেই পর্যায়ে আছি। যদি জানা যায়, মাদক বহনকারীদেরকে সমাজের কোনো না কোনো প্রভাবশালী সমর্থন করছে, ব্যবহার করছে কিংবা রক্ষা করছে তাহলে সেই পর্যন্ত যাবো।

    সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে তিনি বলেন, কক্সবাজার এলাকায় প্রতিদিন এক হাজার কোটি টাকা লেনদেন হচ্ছে। সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে আমরা বলেছি, মোবাইলের মাধ্যমে মাদকের টাকা পেমেন্ট করা হচ্ছে। কক্সবাজার হলো পর্যটন এলাকা। সেখানে টাকা যাবে। অথচ সেখান থেকে টাকা আসছে। বিষয়টি বাংলাদেশ ব্যাংককে চিঠি দিয়ে অবহিত করা হয়েছে।

    র‌্যাব প্রধান বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তৈরি করা মাদকের তালিকা দেখে কাউকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয় না। তার (গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির) বিরুদ্ধে পর্যাপ্ত তথ্য সংগ্রহ করে তারপর আইনি ব্যবস্থা নেয়া হয়। সমুদ্র এলাকায় র‌্যাবের ক্যাম্প স্থাপন করায় মাদক ব্যবসায়ীরা রুট পরিবর্তন করছে। সীমান্ত এলাকায় এতো টাইট থাকা সত্তে¡ও মাদক আসছে।

    আসাম, মেঘালয়, মিজোরাম ও পটুয়াখালী সীমান্ত দিয়ে এখন ইয়াবা আনা হচ্ছে। বিষয়টি নজরদারিতে আছে। সুন্দরবনের জলদস্যুদের মতো মাদক নির্মূলেও একটু সময় লাগবে। এতে দীর্ঘস্থায়ী হবে, আর আমরা জয়ী হবোই। বেনজীর আহমেদ বলেন, সুন্দরবনে জলদস্যু ৪০ বছরের সমস্যা ছিল। ওইসব এলাকায় কেউ সন্ধ্যার পর বাতি জ্বালাতে পারতো না। বাতি দেখলেই ডাকাত, জলদস্যুরা হানা দিতো। দিনে রান্না করে রাতের অন্ধকারে খেতে হতো। সেখানকার বাসিন্দা, জেলে, জনপ্রতিনিধি ও মিডিয়ার সহায়তায় আজ সুন্দরবনকে জলদস্যু মুক্ত করা হয়েছে। মহেশখালী, সোনাদিয়া, কুতুবদিয়া ও কক্সবাজারকে ডাকাত ও দস্যু মুক্ত করা হবে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com