• শিরোনাম

    তিনজনের অস্বাভাবিক মৃত্যু

    সিএনজি থেকে ছুড়ে ফেলা হলো অচেতন তরুণীকে

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৪ এপ্রিল ২০১৮

    সিএনজি থেকে ছুড়ে ফেলা হলো অচেতন তরুণীকে

    রাজধানীর এয়ারপোর্ট এলাকায় চলন্ত সিএনজি থেকে অচেতন অবস্থায় এক তরুণীকে ছুড়ে ফেলে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় লোকজন ওই তরুণীকে উদ্ধার করার পর পুলিশ তাকে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি করে। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, তরুণী এখনো (আজ সন্ধ্যা) কিছুটা অচেতন রয়েছেন। তাকে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা ধরে ছিল নাকি অন্য কোনো ঘটনা রয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তরুণী তার স্বজনদের নামও বলতে পারছে না।

    বিমানবন্দর থানার এসআই শ্রীদাম চন্দ্র রায় জানান,এয়ারপোর্ট গোলচত্বরের পশ্চিম দিকে একটি সিএনজি থেকে ওই তরুণীকে ফেলে দিয়ে যায় অজ্ঞাত ব্যক্তিরা। পরে স্থানীয় লোকজন পাশেই এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের একজন সদস্যকে ডেকে বিষয়টি জানায়। ওই তরুণী আধা অচেতন অবস্থায় ছিল। স্থানীয় লোকজন তার মাথায় পানি দিয়ে জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করে। এতে কাজ না হলে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের সদস্য থানা পুলিশকে বিষয়টি জানায়।

    পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি করে। তিনি জানান, ওই তরুণী অচেতন অবস্থায় আছে। সে গুছিয়ে কিছুই বলতে পারছে না। তার নাম তানিয়া বলছে। কলেজে পড়ে জানালেও কোন কলেজে পড়ে বা তার বাসার ঠিকানার কথা বলতে পারছে না। তাকে পরিবারের সদস্যদের মোবাইল নাম্বার লিখে দিতে বললে সে নিজের মোবাইল নম্বরই লিখে দিচ্ছে। পুলিশ কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়তে পারেন ওই তরুণী। আনুমানিক ২০ বছরের এই তরুণীর পরনে একটি প্যান্ট, পায়ে কেডস এবং গায়ে একটি লম্বা ফতুয়া রয়েছে।

    এদিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুর,গ্রীনরোড ও চকবাজারে তিনজনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। তারা হলো- মাহমুদ হোসেন মামুন (২১), নুরুন্নাহার কাজল (৫৮) ও হাছিনা নকিব (৫৫)। কলাবাগান থানার এসআই এনামুল হক জানান,আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গ্রীনরোডে সরকারী স্টাফ কোয়ার্টারের একটি আম গাছ থেকে পরে মামুন অসুস্থ হয়। পরে তাকে পান্থপথ ইউনিহেলথ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি করালে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সন্ধ্যার দিকে মারা যান। মৃত মামুন নারায়নগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলার মৃত হালিমুদ্দিনের ছেলে। বর্তমানে মিরপুর এলাকায় থাকতেন।

    মৃত নুরুন্নাহারের ভাগীনা মিজানুর রহমান জানান, ঢাকেশ্বরী রোডের ২২-৩, ক/২ নম্বর বাসার ৩য় তলায় থাকতেন নুরুন্নাহার। তার স্বামী মৃত রুহুল আমীন শেখ সাবেক বিসিক পরিচালক। আজ সকালে পানির মোটর চালু করার জন্য নুরুন্নাহার বাসার নিচে নামেন। পানির ট্যাংকির ঢাকনা সরিয়ে উকি দিয়ে দেখার সময় তিনি ভিতরে পড়ে যান বলে দাবী করেন ভাগীনা মিজানুর। কিছুক্ষণ পর তার ভাই সেলিমসহ ছেলে মেয়েরা তাকে খুঁজতে নিচে আসলে পানির ট্যাংকির ভিতর ভাসতে দেখেন। পরে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

    এদিকে সোমবার রাত দুইটার দিকে মোহাম্মদপুরে জাপান গার্ডেন সিটির চারতলার একটি ফ্ল্যাট থেকে পড়ে হাছিনা নকিব (৫৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তার স্বামী হারুন নকিব অবসরপ্রাপ্ত জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা। জাপান গার্ডেন সিটির ১৬ তলা একটি ভবনের চারতলায় স্বামী ও দুই সন্তান নিয়ে থাকতেন হাছিনা নকিব।

    জাপান গার্ডেন সিটি ফ্ল্যাট মালিক কল্যাণ সমিতির যুগ্ম সম্পাদক ও মারা যাওয়া নারীর প্রতিবেশী মুফদি আহমেদ বলেন, ২০ নম্বর ভবনের ৪০৪ নম্বর ফ্ল্যাটটি হারুন নকিবের। তার স্ত্রী হাছিনা নকিব মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। আগেও তার চিকিৎসা করানো হয়েছে। আবার হাসপাতালে নেওয়ার কথা শুনে রান্নাঘরসংলগ্ন বারান্দার গ্রিলের কাটা অংশ দিয়ে তিনি পালাতে চেয়েছিলেন বলে জানা গেছে। মোহাম্মদপুর জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, ওই নারী মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। এর আগে তিনি বাসা থেকে বেরিয়ে চার দিন নিখোঁজ ছিলেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com