• শিরোনাম

    মিথ্যা হত্যা মামলায় তিন পরিবার গ্রাম ছাড়া!

    কুমিল্লা প্রতিনিধি | ১৫ এপ্রিল ২০১৯

    মিথ্যা হত্যা মামলায় তিন পরিবার গ্রাম ছাড়া!

    কুমিল্লার মুরাদনগরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুকে হত্যার ঘটনা সাজিয়ে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে হত্যা মামলার আভিযোগ উঠেছে। হয়রানীমুলক এ মিথ্যা মামলায় তিনটি পরিবারকে গ্রাম ছাড়া করা হয়েছে। তাদের বসতঘরে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনাও ঘটেছে।

    লাশের সুরতহাল রির্পোটে পুলিশ আঘাত ও ক্ষত কোন চিহ্ন না পেলেও এ ঘটনায় হত্যা মামলা হওয়ায় এলাকায় ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। আতঙ্কে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ভূক্তভোগী তিন পরিবার। মুরাদনগর থানার দারোরা ইউনিয়নের পালাসুতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

    জানা গেছে, পালাসুতা গ্রামের আব্দুল বারেক সরকার ও তার ভাই আব্দুল মালেক সরকারের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। গত ১২ মার্চ বারেকের স্ত্রী শারমিন আক্তার (৩৫) ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। ১৩ মার্চ দুপুরে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলেও পরিবারের লোকজন তাকে বাড়ি নিয়ে আসে।

    ওই দিনই সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। ১৪ মার্চ শারমিনের ছেলে মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় চাচা ও জেঠাসহ তিনটি পরিবারের ৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৩ জনের নামে হত্যা মামলা করে। পরে বাদী পক্ষ অভিযুক্তদের বসতঘরে লুটপাট ও ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়।

    হত্যা মামলায় অভিযুক্ত আব্দুল মালেক সরকার জমি সংক্রান্ত বিরোধের কথা স্বীকার করে বলেন, ভাতিজা মনির ওই বিরোধপূর্ন জমি উদ্ধার ও মোটা অংকের টাকা পাওয়ার আশায় ডায়রিয়া মৃত্যু ঘটনাকে হত্যার একটি নাটক সাজিয়ে হয়রানীমূলক মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা করে।

    পরে মনিরসহ একই গ্রামের আবু বক্কর সালাফীর সহযোগীতায় তার দলবল নিয়ে আমাদের তিনটি পরিবারকে গ্রাম ছাড়া করে ৪টি বসত ঘরের মালামাল, ৪টি গরু, ৭০টি গাছ কেটে ও লুট করে নিয়ে যায়। মিথ্যা এ মামলার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়ে তিনি সঠিক বিচার দাবি করেন।

    দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবীর বলেন, শারমিন আক্তার গত ১২ মার্চ মাথা ব্যাথা, বমি ও ডায়রিয়া সমস্যায় এখানে ভর্তি হয়েছিল। ১৩ মার্চ দুপুরে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

    মুরাদনগর থানার ওসি কেএম মনজুর আলম বলেন, মামলাটি তদন্ত চলছে। বাড়ী-ঘরে লুটপাটের বিষয়টি আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বে-রসিক ইউএনও!

    ১২ মার্চ ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com