• শিরোনাম

    বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র জিসান হত্যা

    নোমান নামে আরও একজন গ্রেফতার

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৭ মে ২০১৯

    নোমান নামে আরও একজন গ্রেফতার

    রাইড শেয়ারিং সার্ভিসে (উবার/পাঠাও) মোটরসাইকেল চালিয়ে জীবন নির্বাহ করা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইসমাইল হোসেন জিসান (২৪) হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নোমান নামে আরও একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার রাতে রাজধানীর দারুসসালাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে হত্যায় জড়িত আরও তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। এ নিয়ে মোট চারজনকে গ্রেফতার করা হলো।

    নিহত জিসান বেসরকারি ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র ছিলেন। পড়াশোনার ফাঁকে তিনি রাইড শেয়ারিং সার্ভিস উবার ও পাঠাওয়ের মোটরসাইকেল চালাতেন। শেরেবাংলা নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, দারুসসালাম এলাকা থেকে নোমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও অনেকে জড়িত থাকতে পারে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

    মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার এসআই সুজানুর ইসলাম বলেন, জিসান খুনে জড়িত থাকার অভিযোগে এখন পর্যন্ত চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলো প্রধান আসামী গাজীপুরের দোকানদার হাসিবুল, তার স্ত্রী সজনি এবং হাসিবুলের বন্ধু শাওন। সর্বশেষ নোমানকে গ্রেফতার করা হলো। এর মধ্যে জিসানকে হত্যার দায় স্বীকার করে ঢাকার আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে হাসিবুল। জবানবন্দিতে হাসিবুল জানায়, প্রথমে দুই বন্ধুকে নিয়ে জিসানকে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরে তাকে বাসায় নিয়ে সবাই মিলে হত্যা করে।

    প্রসঙ্গত,গত ১২ মে ইসমাইল হোসেন জিসান নিখোঁজ হন। পরে ২৩ মে গাজীপুরের গাছা ইউনিয়নের কামারজুরি এলাকার মধ্যপাড়ার একটি বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে জিসানের গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তার বাবা বাদী হয়ে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। নিহত জিসান রাজধানীর শ্যামলীর ২ নম্বর রোডে বন্ধুর সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকতেন। তিনি গাজীপুর জেলার গাছা থানাধীন কাথোরা গ্রামের সাব্বির হোসেন শহীদের ছেলে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com