• শিরোনাম

    বাজার কারসাজির বিরুদ্ধে র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকারের দিনভর অভিযান

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৩ মার্চ ২০২০

    বাজার কারসাজির বিরুদ্ধে র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকারের দিনভর অভিযান

    করোনা ভাইরাস আতঙ্ককে পুঁজি করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যে বেশি দামে বিক্রি করছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে ঢাকা জেলা প্রশাসন নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছে। গতকালও ঢাকা জেলা প্রশাসনের ৮জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। এছাড়া র‌্যাব ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের(ডিএনসিআরপি) মোবাইল কোর্ট বাজার নিয়ন্ত্রণে অভিযান চালায়। অভিযানে৪৩ লাখ ৬২ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেওয়া হয়।এছাড়া হোম কোয়ারান্টাইন না মানায় দুইজনকে জরিমানা করা হয়।

    র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, গতকাল পুরান ঢাকার শ্যামবাজারে অভিযান চালিয়েঅতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ, রসুন, আদা ও আলু বিক্রি করায় ২৩টি আড়তকে ৪২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেওয়া হয়।ডিএনসিআরপির সহকারী পরিচালক মো, আব্দুল জব্বার মন্ডল জানান, গতকাল উত্তরার বেগম জহুরা মার্কেটে অভিযান চালিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধি করায় ১২টি প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

    নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে সিদ্ধেশ্বরী, মগবাজার, শান্তিনগর এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় কোন কোচিং সেন্টার এবং কমিউনিটি সেন্টারখোলা পাওয়া যায়নি। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহফুজ পুলকের নেতৃত্বে সাভারের সাধাপুর মাঝিপাড়া এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় দুবাই ফেরত প্রবাসি মো. মামুন কায়সারকে হোম কোয়ারেন্টাইন যথাযথভাবে পালন না করায় ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

    নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা রহমানের নেতৃত্বে লালবাগ এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় সকল কমিউনিটি সেন্টার, কোচিং সেন্টার বন্ধ পাওয়া যায়।নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রবিউল আলমের নেতৃত্বে ধানমন্ডি এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় সকল কনভেনশন সেন্টার, পার্টি সেন্টার এবং কোচিং সেন্টার বন্ধ পাওয়া যায়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোশারেফ হোসাইনের নেতৃত্বে পল্টন, বিজয়নগর এবং কাকরাইলে অভিযান চালানো হয়। এ সময় বিভিন্ন ঔষধ ফার্মেসিতে মাস্কসহ হ্যান্ড স্যানিটাইজারের দাম স্বাভাবিক ছিল।

    নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জ্যোতি বিকাশ চন্দ্রের নেতৃত্বে দোহার লস্করকান্দা গ্রামে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সিঙ্গাপুর ফেরত প্রবাসি আব্দুস সালামকে হোম কোয়ারেন্টাইন যথাযথভাবে পালন না করায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে তার বাড়িতে লাল পতাকা টাঙিয়ে দেয়াসহ সাতজন প্রবাসীর বাড়িতে লাল পতাকা টানানো হয়।

    নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মোরাদ আলীর নেতৃত্বে মিরপুর-১ ও পল্লবীতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় কমিউনিটি সেন্টার, কনভেনশন সেন্টার, কোচিং সেন্টার বন্ধ পাওয়া যায়।নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাজিবুল ইসলামের নেতৃত্বে নবাবগঞ্জ উপজেলায় বাজার মনিটরিং করা হয়। এ সময় পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি ১০-১৫ টাকা কমে যায়।

    এ বিষয়ে ঢাকা জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী নাহিদ রসুল জানান, মোবাইল কোট অভিযান অব্যাহতথাকায় বাজার পরি¯ি’তি স্বাভাবিক রয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও সেবা সমূহের মূল্য নিয়ন্ত্রণে আমাদের এ অভিযান চলবে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com