• শিরোনাম

    মামলা করে ১০ বছর পর কোটায় চাকরি

    ডেনাইট ডেস্ক | ১১ জুলাই ২০২০

    মামলা করে ১০ বছর পর কোটায় চাকরি

    আদালতে মামলা করে ১০ বছর পর মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরি পেলেন নাদিরা সুলতানা নামে পঞ্চগড়ের এক মুক্তিযোদ্ধা সন্তান। গত বুধবার সদর উপজেলার অমরখানা ইউনিয়নে স্বাস্থ্য সহকারী পদে তিনি সিভিল সার্জন কার্যালয়ে কাজে যোগদান করেছেন। নাদিরা সদর উপজেলার জতনপুখুরী গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা জবায়দুর রহমানের মেয়ে ও একই উপজেলার ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মাহবুব আলমের স্ত্রী।

    জানা গেছে, ২০১০ সালের জুলাই মাসে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অধীনে পঞ্চগড় জেলায় ১৭টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য সহকারী পদে নিয়োগ পরীক্ষা হয়। নাদীরাসহ ৫ জন মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ওই নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। নিয়োগবিধি অনুসারে ৩০ শতাংশ হিসেবে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৫ জনকেই নিয়োগ দেওয়ার কথা থাকলেও সিভিল সার্জন কার্যালয় চারজনকে নিয়োগ দেন। নাদীরা সুলতানাকে বাদ দিয়ে ওই ইউনিয়নে সুজন কুমার রায় নামে একজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়।

    পরে নাদিরা পঞ্চগড় সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে সুজন কুমার রায়ের নিয়োগ বাতিল করে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় তাকে নিয়োগ দেওয়ার দাবিতে আদেশাত্মক নিষেধাজ্ঞা মামলা করেন। ২০১১ সালের জুন মাসে অমরখানা ইউনিয়নে কর্মরত স্বাস্থ্য সহকারী সুজন কুমারের নিয়োগ বাতিল করে আদালত নাদীরা সুলতানাকে সেখানে স্থলাভিষিক্ত করার রায় প্রদান করেন। মামলার বিবাদী পক্ষ সিভিল সার্জন মামলাটি জেলা জজ আদালতে আপিল করেন।

    ২০১২ সালের মে মাসে রায় বহাল রেখে মামলাটি খারিজ করে দেন জেলা জজ আদালত। এর পরে বিবাদিপক্ষ সুপ্রীম কোর্টে আপিল করেন। কিন্তু গত ৭ জানুয়ারি সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগও নিম্ন আদালতের রায় বহাল রেখে মামলাটি খারিজ করে দেয়। উচ্চ আদালতে নাদিরার পক্ষে রায় আসায় গত ২৮ জুন তাকে কাজে যোগ দেওয়ার নির্দেশনা পাঠায় স্বাস্থ্য অধিদফতর। এ ব্যাপারে নাদীরা সুলতানা বলেন, আমার বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা। দীর্ঘদিন মামলা চালিয়েছেন আমার বাবা।

    আদালতের রায়ে আমরা খুশি। এই মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম খায়ের। তিনি বলেন নাদীরা সুলতানা অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য ১০ বছর ধরে লড়াই করেছেন। আদালত একটি ঐতিহাসিক রায় প্রদান করেছেন। ভবিষ্যতে এই রায় নজির হিসেবে কাজ করবে। সিভিল সার্জন মো. ফজলুর রহমান জানান, সুপ্রিম কোর্ট এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী তাকে অমরখানা ইউনিয়নের স্বাস্থ্য সহকারী পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তিনি কাজে যোগদান করেছেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বে-রসিক ইউএনও!

    ১২ মার্চ ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে daynightbd.com