• শিরোনাম

    কাদের খানের স্বীকারোক্তি

    এমপি হওয়ার লোভেই হত্যাকাণ্ড

    | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

    এমপি হওয়ার লোভেই হত্যাকাণ্ড

    গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যার দায় স্বীকার করেছেন একই আসনের জাতীয় পার্টি (এরশাদ) সাবেক এমপি কর্নেল (অব:) ডা: আব্দুল কাদের খান।
    গত রাত সাড়ে ৯টায় গাইবান্ধা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতের বিচারক জয়নুল আবেদিনের আদালতে ১৬৪ ধারায় এ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন তিনি।
    রংপুর রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি বশির আহমেদ এ কথা জানিয়ে বলেন, ‘আব্দুল কাদের স্বীকারোক্তিতে নিজেকে হত্যার সাথে সম্পৃক্ত করেছেন। এ ছাড়া এমপি হওয়ার লোভ থেকেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন তিনি। হত্যাকাণ্ডে জড়িত আরো তিনজন আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। এ মামলার চার্জশিট আগামী ১৫ দিনের মধ্যে দেয়া সম্ভব হবে বলে তিনি জানান।
    সাবেক এমপি আব্দুল কাদেরের বাড়ি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ছাপরহাটি ইউনিয়নের পশ্চিম ছাপরহাটি (খানপাড়া) গ্রামে। তবে তিনি সপরিবারে বগুড়া জেলা শহরের গরীব শাহ কিনিকের চারতলা ভবনের ওপর তলায় বাস করেন। এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে মঙ্গলবার বিকেলে সেখান থেকেই তাকে গ্রেফতার করে গাইবান্ধা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা। পরে রাত সাড়ে ৯টায় বগুড়া থেকে পুলিশভ্যানে করে গাইবান্ধা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আনা হয় তাকে।
    এরপর বুধবার দুপুরে তাকে লিটন হত্যা মামলার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে গ্রেফতার দেখিয়ে ১০ দিনের চেয়ে রিমান্ড আদালতে পাঠান পুলিশ। এর পরিপ্রেেিত শুনানি শেষে বিচারক ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
    ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নে শাহবাজ (মাস্টারপাড়া) এলাকায় নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। এ ঘটনায় লিটনের বোন তাহমিদা বুলবুল বাদি হয়ে অজ্ঞাত চার-পাঁচজনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com