• শিরোনাম

    দষ্টিহীনদের জন্য বিশেষ ছড়ি উদ্ভাবন চার শিক্ষার্থীর

    অগ্রবাণী ডেস্ক: | ০৫ মার্চ ২০১৭

    দষ্টিহীনদের জন্য বিশেষ ছড়ি উদ্ভাবন চার শিক্ষার্থীর

    দৃষ্টিহীনদের নিরাপদে পথ চলতে একটি বিশেষ ধরনের ছড়ি বা স্টিক তৈরি করেছে দিনাজপুরের চার স্কুলশিক্ষার্থী। চলাফেরার সময় ছড়িটি নানারকম প্রতিবন্ধকতার খবর জানিয়ে দেবে দৃষ্টিহীন মানুষটিকে।

    দৃষ্টিহীনদের পথ প্রদর্শক এই ছড়িটি উদ্ভাবন করেছেন উসামা বিন আলম (সিক্ত), সাদমান জামাল স্বাক্ষর, আফরিন জাহান আভা ও মৌলতা মিমি নিশা। তারা সবাই শহরের দিনাজপুর কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। ছড়িটির নাম দেওয়া হয়েছে দৃষ্টিহীনদের থার্ড আই বা তৃতীয় চোখ।

    একজন দৃষ্টিহীন মানুষের চায় তার চলাফেরায় একটু নিরাপত্তা। সমাজ রাষ্ট্রও আজ তাদের দিয়েছে নানান সুবিধা। তারা এখন একটি সাদাছড়ি দিয়ে চলাফেরা করে।

    এই শিক্ষার্থীদের দলনেতা উসামা বিন আলম (সিক্ত) জানান, অন্ধ মানুষের পথ প্রদর্শক হিসেবে কাজ করবে এই থার্ড আই বা তৃতীয় চোখ এর স্টিকটি। চলাফেরার সময় দুই মিটারের মধ্যে কোন প্রতিবন্ধকতা এলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে কেঁপে উঠবে এই বিশেষ ছড়িটি। পথ নির্ণয় এবং কোন বাঁধা থাকলে তা নির্ণয়ও করতে পারবে ওই দৃষ্টিহীন মানুষটি। ছড়িটিকে আরও মডিফাই করা হলে আরও কিছু সুবিধা পেতে পারে দৃষ্টিহীন মানুষেরা। এটি তৈরিতে খরচও কম।

    তিনি জানান, ছড়িটি তৈরিতে স্টিলের পাইপ, সার্কিট সেনসর, ভাইব্রেটর মটর, পেন্সিল ব্যাটারি ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়েছে। সবকিছু মিলিয়ে ছড়িটি তৈরিতে খরচ পড়বে দেড় থেকে দুই হাজার টাকা।

    দিনাজপুর কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ রাহিনূর ইসলাম সিদ্দিকি জানান, ৩ মার্চ কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজ ক্যাম্পাসে আয়োজন করা হয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা। তিনটি ক্যাটাগরিতে দুই শতাধিক শিক্ষার্থী এতে অংশ গ্রহণ করে। ৩৩টি স্টলে ক্ষুদে বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবনের সাথে স্থান পেয়েছে দৃষ্টিহীনদের পথপ্রদর্শকের স্টিকটিও। গত ৪ মার্চ এ বিজ্ঞান মেলায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে তাদের বিশেষ ধরনের ছড়িটি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    মা হওয়ার পথে বাধা রাতের ডিউটি!

    ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে daynightbd.com