• শিরোনাম

    হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

    পরিবহন শ্রমিকদের হামলায় ২০ শিক্ষার্থী আহত, বাসে আগুন

    দিনাজপুর প্রতিনিধি | ২৩ নভেম্বর ২০১৭

    পরিবহন শ্রমিকদের হামলায় ২০ শিক্ষার্থী আহত, বাসে আগুন

    দিনাজপুরে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীবাহী বাসের ঘষা লাগা নিয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালিয়েছেন পরিবহন শ্রমিকেরা। এতে কমপক্ষে ২০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এ ঘটনার জের বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে দুটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার পর থেকে আজ বুধবার রাত আটটা থেকে দিনাজপুরের সঙ্গে রংপুর ও ঠাকুরগাঁওয়ের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। পরিবহন শ্রমিকদের হামলায় গুরুতর আহত দুই শিক্ষার্থী নিবিড় এবং সৌরভকে এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

    শিক্ষার্থী এবং এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ক্যাম্পাস থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিয়ে চারটি বাস জেলা শহরের দিকে যাচ্ছিল। শহরের বাস টার্মিনালের সামনে তৃপ্তি পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বাসের ঘষা লাগে। এর জের ধরে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে টার্মিনালের পরিবহন শ্রমিকেরা এসে শিক্ষার্থীদের লাঞ্ছিত করেন। একপর্যায়ে পরিবহনশ্রমিকেরা লাঠিসোঁটা দিয়ে শিক্ষার্থীদের এলোপাতাড়ি পেটান।

    দিনাজপুর বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বলেন, যাত্রীবাহী তৃপ্তি পরিবহনের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসের ঘষা লাগা নিয়ে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ের ছাত্ররা একটি পেট্রলপাম্প থেকে পেট্রল এনে বাসে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। এতে পরিবহন শ্রমিকেরা উত্তেজিত হয়ে ছাত্রদের কিছুটা ‘মারডাং’ করে। এর জের ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে তৃপ্তি পরিবহন ও শাহী পরিবহনের দুটি যাত্রীবাহী বাস এবং তিনটি ট্রাকে আগুন ধরিয়ে দেন শিক্ষার্থীরা।

    বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সফিউল আলম বলেন, সামন্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিবহনশ্রমিকেরা শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করেছেন। এতে বেশ কয়েকজন ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছেন। এ ঘটনার জের ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে দুটি পরিবহনে হামলার ঘটনা ঘটেছে। তবে এ ঘটনা কে ঘটিয়েছে, তা তিনি জানেন না। দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মিজানুর রহমান বুধবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে বলেন, দুটি বাস পোড়ানোর ঘটনা ঘটেছে। ছাত্রদের ওপর হামলার ঘটনায় বিচারের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে রাখা হয়েছে। বর্তমানে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। রাত ১০টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দিনাজপুরের সঙ্গে রংপুর ও ঠাকুরগাঁওয়ের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ ছিল।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বে-রসিক ইউএনও!

    ১২ মার্চ ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে daynightbd.com