• শিরোনাম

    সোনায় প্রলেপ দিয়েও শেষ রক্ষা হলো না

    চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ২৩ নভেম্বর ২০১৭

    সোনায় প্রলেপ দিয়েও শেষ রক্ষা হলো না

    ট্রলি ব্যাগের ভেতরে লুকানো সোনার দণ্ড। শুল্ক কর্মকর্তাদের চোখ ফাঁকি দিতে ওই দণ্ডের ওপর দেওয়া হয়েছে পারদের প্রলেপ। আর কেউ যাতে সন্দেহ না করে এ কারণে অসুস্থতার ভান করে সোনা পাচারের চেষ্টা করেছিলেন দুবাই ফেরত যাত্রী মো. মালেক। কিন্তু এত কৌশল করেও কাস্টমস কর্মকর্তাদের কাছে সোনাসহ ধরা পড়ে গেছেন ওই যাত্রী। আজ বুধবার সকালে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুটি ব্যাগ থেকে পারদের প্রলেপ দেওয়া সাড়ে তিন কেজি ওজনের সোনার দণ্ডসহ দুবাই ফেরত যাত্রী মো. মালেককে আটক করেছে কাস্টমস কর্মকর্তারা।

    মালেকের বাড়ি চট্টগ্রামের রাউজানে।শুল্ক কর্মকর্তারা জানান, পারদের প্রলেপ ছাড়া ওই সোনার ওজন প্রায় তিন কেজি। এর বাজারমূল্য আনুমানিক ১ কোটি ১০ লাখ টাকা।বিমানবন্দরে নিয়োজিত কাস্টমসের সহকারী কমিশনার মো. তানভীর আহমেদ বলেন, সোনা পাচার করতে অভিনব কৌশল নিয়েছিলেন রাউজানের মো. মালেক নামের প্রবাসী। সোনার দণ্ডের ওপর পারদের প্রলেপ থাকায় তা সোনা কি না কারিগর নিয়ে এসে পরীক্ষা করতে হয়েছে।

    নিশ্চিত হওয়ার পর এসব সোনার দণ্ড জব্দ করে ওই যাত্রীকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা করা হচ্ছে।কাস্টমস কর্মকর্তারা জানান, ফ্লাই দুবাইয়ের একটি উড়োজাহাজে করে ওই যাত্রী আজ সকাল ১০টা ১০ মিনিটে বিমানবন্দরে নামেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ওই যাত্রীর ব্যাগ তল্লাশি করা হয়। পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়ার পর বিকেলে এসব সোনার দণ্ড জব্দ করা হয়।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বে-রসিক ইউএনও!

    ১২ মার্চ ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে daynightbd.com