• শিরোনাম

    বাল্যবিয়ের খড়গ থেকে মুক্তি পেল হালিমা

    পটুয়াখালি প্রতিনিধি | ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

    বাল্যবিয়ের খড়গ থেকে মুক্তি পেল হালিমা

    বিয়েল বরযাত্রী আসছে। তাদের জন্য রান্নার আয়োজনও সম্পন্ন। পুরো বাড়ি জুড়েই বিয়ের আনন্দ উৎসব। পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার চম্পাপুর ইউনিয়নের পাটুয়া গ্রামের পূর্ব পাটুয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী মাহাতাব খাঁ এবং আসমা বেগমের কন্যা বিয়ের সকল আয়োজন হঠাৎ করেই পন্ড হয়ে যায়।

    বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা আভাস এরআরপি’র প্রকল্প ব্যবস্থাপক মনিরুল ইসলাম, ইউপি সদস্য কামাল তালুকদার তৎপারতায় এবং কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন মিলনের সহায়তায় বাল্য বিয়ের খড়খ থেকে মুক্তি পেল উত্তর পূর্ব পাটুয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর শিক্ষার্থী হালিমা বেগম।

    জানা গেছে,  শুক্রবার সকালে মাহাতাব খান তার স্কুল পড়ুয়া মেয়ে হালিমার বিয়ের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেন। এদিন সকালে উল্লেখিতদের তৎপরতায় সকল আয়োজন বাতিল করে ইউপি চেয়ারম্যান রিন্টু তালুদার, ইউপি সদস্য কামাল তালুকদার, সংরক্ষিত ইউপি সদস্য মিনারা বেগম, আভাস কর্মকর্তা আরিফ ইসলামের উপস্থিতে মুচলেকা দিয়ে বিয়ে বাতিল করেন।

    ইউপি সদস্য কালাম তালুকদার বলেন, বাল্যবিয়ের হাত থেকে এবারের মত একটি মেয়ে রক্ষা পেয়েছে।

    আভাস কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, বাল্যবিয়ে একটি সামাজিক ব্যাধি। আমরা দীর্ঘদিন ধরে এনিয়ে কাজ করছি। শুক্রবার সকালে বাল্যবিয়ের বিষয়টি জানতে পেরে সংশিস্ট ইউপি চেয়ারম্যান, সদস্য এবং ওসির সহয়িতায় বিয়েটি বন্ধ করি।

    ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রিন্টু তালুকদার জানান, সকলের উপিস্থিতে ১৮ বছর বয়সে মেয়েকে বিয়ে দেয়ার মুচলেকা দেন মেয়ের বাবা মাহাতাব।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বে-রসিক ইউএনও!

    ১২ মার্চ ২০১৭

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে daynightbd.com