• শিরোনাম

    ঘোর বিপাকে বাবর ব্রিগেড

    স্পোটর্স | মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

    ঘোর বিপাকে বাবর ব্রিগেড

    ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটা জেতাতে কম চেষ্টা করেননি নাসিম শাহ। ভারতকে ১২০ রানে আটকে দিতে বড় ভূমিকা পালন করা নাসিম ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে নেন ৩টি উইকেট। শেষ ওভারে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে দুটি চার মেরে দলকে জেতানোর চেষ্টা করেন। কয়েকটা বল আগে নামলে হয়তো ম্যাচটা জিতিয়েও দিতে পারতেন। তবে না পারার আক্ষেপে কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছাড়েন এই তরুণ পেসার।

    দলকে জেতাতে নাসিম যতটা করেছেন, বাকিরাও কোনোদিক থেকে কমতি রাখেননি। তবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে ৬ রানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পথে পাকিস্তান। তাদের সম্ভাবনা এখন টিকে আছে শুধু কাগজ-কলমের হিসাবে। আসরের অন্যতম ফেবারিট দলের এমন অবস্থা মানতে পারছেন না অনেকেই। পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা তো ধুয়ে দিচ্ছেন বাবর আজমের দলকে। সুযোগ বুঝে খোঁচা মারছেন অন্যরাও।

    নিউইয়র্কের উইকেট নিয়ে সমালোচনা থাকতে পারে। তবে ছোট লক্ষ্য তাড়ায় পাকিস্তান ব্যর্থ হওয়ায় প্রশ্ন তুলেছেন সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার মাইকেল ভন। বাবরের ব্যর্থতায় আত্মবিশ্বাস নিয়ে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে ভন বলেন, ‘কখনো কখনো সত্যিকার অর্থেই বাজে পিচও সেরা ম্যাচ উপহার দেয়…এটা (ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ) সেগুলোরই একটি। পাকিস্তানের এই বিশ্বাসই নেই যে তারা জিততে পারে। এটাই মোদ্দাকথা।’ ভনের মতো পাকিস্তানের ব্যাটিং নিয়ে সমালোচনা করেছেন ভারতের সাবেক পেসার ইরফান পাঠান, ‘পাকিস্তানের সব ক্রিকেট সমর্থকদের বলছি, তোমাদের দল ম্যাচের বিভিন্ন বিভাগে ভালো করেছে। কিন্তু শেষটা ভালো করতে পারেনি। যে পিচে কিছু থাকবে, সেখানে এই ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে সবসময়ই সমস্যায় পড়তে হবে।’

    দলের এমন হারে হতবাক সাবেক তারকা পেসার শোয়েব আখতার। তিনি কোনোভাবেই এটা মানতে পারছেন না। ম্যাচের আগে তিনিই আত্মবিশ্বাস নিয়ে বলেছিলেন, ‘বিশ্বাস করুন, পাকিস্তানের দারুণ সুযোগ আছে।’ সত্যিই দারুণ সুযোগ ছিল পাকিস্তানের। শোয়েব ভুল বলেননি। কিন্তু সুযোগটা কাজে লাগতে পারেননি বাবর-রিজওয়ানরা। যা দেখে শোয়েব বলেছেন, ‘পুরো দেশ হতাশ। মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে। তোমাদের একে অপরের জন্য খেলতে হতো, দেশের জন্য খেলতে হতো। ম্যাচ জেতার আকাংখা দেখাতে হতো। হতাশাজনক। পাকিস্তান কি আসলে সুপার এইটের আগে বিদায় নেওয়ার মতো দল? সৃষ্টিকর্তা জানেন। এই প্রশ্নটা আমি আপনাদের জন্য রাখছি। আপনারা সিদ্ধান্ত নিন।’

    ওয়াসিম আকরাম-ওয়াকার ইউনুসরাও ধুয়ে দিয়েছেন বাবরের দলকে। চারদিক থেকে ধেয়ে আসা সমালোচনার তীরে বিদ্ধ দলটিকে তো প্রচ্ছন্ন হুমকিই দিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান মহসিন নাকভী। নিউইয়র্কে সাংবাদিকদের তিনি বলেছেন, ‘আমি ভেবেছিলাম ম্যাচ জিততে দলের ছোট অস্ত্রোপচার প্রয়োজন। কিন্তু এখন দেখছি আমাদের বড় অস্ত্রোপচারে যেতে হবে।’ এমন কথায় মূলত দলে বড় পরিবর্তন আনার বার্তাই দিয়েছেন পিসিবি চেয়ারম্যান। পরে তো সরাসরিই বলেছেন কথাটা, ‘আমাদের এখন দলের বাইরে থাকা খেলোয়াড়দের দিকে তাকাতে হবে।’

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১২:৪৯ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

    daynightbd.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    নিশাম এসেই রংপুরের জয়ের নায়ক

    ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০